কম খরচে কথা বলতে আইপি কলিং এপ ব্যবহার করুন

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি
দিন দিন মোবাইল অপারেটরদের কলরেট বেড়ে চলছে সেই সাথে বেড়ে চলছে আমাদের প্রতিদিনের মোবাইল ফোনের কলের বিল । অনেকেই আছেন যাদের প্রতিদিনই ব্যবসায়িক কাজে হাজারখানেক কল দিতে হয় কাস্টমারকে । আবার অনেকেই প্রিয়জনদের সাথে লম্বা সময় কথা বলে কাটিয়ে দিয়ে থাকেন । মূলত তাদের জন্য আইপি কলিং এপের বিকল্প নেই । আসুন জেনে নেওয়া যাক আইপি কলের ব্যবহারের সুবিধা সমূহ :

 

 

১. আইপি কলিং এপ ব্যবহার করলে আপনি ভ্যাটসহ মাত্র ৩৪ পয়সায় বাংলাদেশী যেকোন লোকাল নাম্বারে কথা বলতে পারবেন ।
২. আইপি কলিং এপ দিয়ে কল দিলে আপনার অরজিনাল নাম্বারটি গোপন থাকবে এবং সিমের নাম্বারের বিপরীতে একটি ভার্চুয়াল আইপি নাম্বার তৈরি হবে ।
৩. আইপি কলিং এপ দিয়ে আপনি চাইলে যেকোনো সময় কল দিতে পারবেন ।
৪. আইপি কলিং এপ থেকে আপনি চাইলে বিকাশ,রকেট,কার্ড ইত্যাদি দিয়ে আপনি রিচার্জ করে নিতে পারবেন ।
৫. যে কেউ চাইলে আপনার আইপি নাম্বারে কল ব্যাক করে কথা বলতে পারবে ।

 

 

বাংলাদেশে প্রায় দুই ডজনেরও বেশি আইপিটিএসপি রয়েছে যারা এই সার্ভিস গুলো দিয়ে থাকে এদের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ইন্টারক্লাউড এর ব্রিলিয়ান্ট কানেক্ট, আম্বার আইটি, লিংক থ্রি এর ডায়েল, আইসিসি কমিউনিকেশন ইত্যাদি । আপনারা চাইলে আপনার ফোন নাম্বার এবং এনআইডি কার্ডের ছবি দিয়ে সংযোগটি নিতে পারবেন । প্রত্যেকটি প্রোভাইডারের রয়েছে নিজস্ব স্বতন্ত্র নাম্বার । এছাড়াও আপনি চাইলে আপনার প্রতিষ্টানের জন্য আলাদা কাস্টমাইজ নাম্বার বানিয়ে নিতে পারবেন ।

 

 

আইপি কলিং সম্পর্কৃত অনেক ভিডিও ইউটিউবে রয়েছে তবে আপনি চাইলে টেক প্যানাসিয়ার ইউটিউব চ্যানেল থেকে সব আইপি কলিং এপ সম্পর্কে জেনে নিতে পারেন । আইপি কলিং এপগুলো বাংলাদেশ সরকার ধারা অনুমোদিত তাই আপনাকে কোনো রকম ঝামেলা পোহাতে হবে না এটা ব্যবহারের জন্য । আপনি বাংলাদেশের বাহির থেকে এই সার্ভিস ব্যবহার করতে পারবেন না । যদি বাংলাদেশের বাহির থেকে ব্যবহারের চেষ্টা করেন তাহলে হয়ত আপনার একাউন্ট ডিজাবল হয়ে যেতে পারে ।

 

 

এটা নিয়ম করা হয়েছে যাতে কেউ চাইলে বিদেশ থেকে এই এপটি ব্যবহার করে কোনো ধরনের অপরাধমূলক কাজ না করতে পারে । যেহেতু আইপি কলিং এপে একাউন্ট খুলতে আইডি কার্ডের তথ্য দিতে হয় তাই কেউ চাইলেও এই নাম্বার গুলো ব্যবহার করে অপরাধ করতে পারবে না । এবং যদি অপরাধ করেও তাহলে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিরে অতি সহজেই আইনের আওতায় নিয়ে আসতে পারে সে ব্যবস্থা করা হয়েছে । তাই অবশ্যই আপনার একাউন্টটি কোনো অনৈতিক কাজে ব্যবহার করবেন না ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *